Follow by Email

Friday, September 9, 2011

Banchiye Rakhe - Bengali Poem


বাঁচিয়ে রাখে...

অনিশ্চিয়তা আমাকে কুঁড়ে কুঁড়ে খায়ে,
আমার প্রতিটি দিন যেন সহস্র বছর 
বন্ধ দরজা, উন্মুক্ত আকাশের লালসা 
আমাকে বাঁচিয়ে রাখে. 
পাহাড়ের গা ঘেষে এক ফালি মেঘ,
শিশির বিন্দুর কানাকানি.
ডাক টিকিটের বন্ধ খাম,
আমাকে বাঁচিয়ে রাখে. 

জীবিকার জীর্ণ রাস্তা,
অনিশ্চিয়তার রাজপ্রাসাদে 
একাকিত্বের মসনদে, নকল রাজা!
আকাঙ্খার ধংশস্তুপ পেরিয়ে 
কাঁচা মেঘের প্রথম বৃষ্টি 
আমাকে বাঁচিয়ে রাখে.
নতুন ঘাসের গন্ধ, গঙ্গার ঘোলাটে জল 
সূর্যের সান্ধ ডুব,
আমাকে বাঁচিয়ে রাখে. 

অনিশ্চিয়তা আমাকে কুঁড়ে কুঁড়ে খায়ে,
আমার প্রতিটি দিন যেন সহস্র বছর,
তভুও আমি প্রতিদিন ঘুম থেকে উঠি,
এক মুঠো টাটকা স্বপ্ন নিয়ে. 
টেলিফোনের রিংটোন, 
এক অচেনা ই-মেল,
দৈনন্দিন সাংসারিক ঝগড়া,
মাছের বাজারে দরাদরি,
আমাকে বাঁচিয়ে রাখে. 

অনিশ্চিয়তা আমাকে কুঁড়ে কুঁড়ে খায়ে,
কালকের চিন্তা, আমাকে আমার আজ-কে কেড়ে নেয়.
ডাকিনি যোগিনী আমার রাতের ঘুম,
তভুও আমি ঘুম থেকে উঠি,
কুয়াশা কাটিয়ে সুর্যোদয়ের প্রত্যাশা নিয়ে.
কফি হাউজের নির্ভেজাল আড্ডা,
নন্দন-এর রেলিঙে বসে সিনেমার কচকচানি,
রবীন্দ্র সদনের গানের জলসা 
আমাকে বাঁচিয়ে রাখে. 
শীতের বনা উল, পুজোয় মানুষের ঢল,
শালপাতায় ফুচকা, চিড়িয়াখানার পিকনিক 
আমাকে বাঁচিয়ে রাখে. 


প্রতাশার দিন, অপেক্ষার রাত 
ঘন মেঘের মত আমার বুকের ভিতর 
অন্ধকার করে আশা, যেন এক মোমের প্রদীপ 
মাস মাইনের জীবন যাপন, 
মেকি কথা, মেকি আশা, মেকি ভালবাসা 
মেকি তোমার চোখের ভাষা.
দোয়েলের ডাক, ভোরের আলো,
ফেরিওলার হাঁক, রিকশার টুঙ-টাঙ্গ
নতুন বইয়ের গন্ধ, বই মেলার ধুলো 
আমাকে বাঁচিয়ে রাখে!


অনর্গল টানাপড়েনের পর, 
হার মেনেছে অনিশ্চিয়তা, আমার কাছে! 
এক ফালি খুশি আজ আমাকে বাঁচিয়ে রাখে. 
ছাদের হুলোটা, মাঠের কাকতারুয়া,
খুড়ির চা, জগাদার তেলেভাজা,
আরসালান-এর বিরিয়ানি, ফ্লুরিস-এর কেক, 
ভাইচুন এর ফুটবল, পাড়ার নাটক 
উত্তম-সুচিত্রার প্রেম, রুদ্রাপ্রাসাদের রুদ্ধশ্বাস,
ময়দানের মিছিল, ভিক্টরিয়ার পরী,
মমতার ভাষণ, পরিবর্তেনের হাওয়া 
আমাকে বাঁচিয়ে রাখে!

No comments:

Post a Comment

Photo Gallery

Photo Gallery